অভিনেতা বরুণ ধাওয়ানের বাবা ডেভিড ধাওয়ানের জন্য মিষ্টি দই পাঠাতে চেয়ে বিপাকে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়! দই নিতে তীব্র আপত্তি অভিনেতার, বিতর্ক সোশ্যাল মিডিয়ায়

সোশ্যাল মিডিয়া মানে আজকাল নানান ভাইরাল ভিডিও সম্ভার। ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের মতো প্ল্যাটফর্ম গুলি দ্রুত মানুষের মধ্যে জনপ্রিয়তা,

লাভ করে উঠেছে। পূর্ববর্তী সময়ে স্মার্টফোনের সহজলভ্যতা না থাকায় সহজে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করা যেত না।

কিন্তু আজকাল যে ভাবে মুঠোফোনে বন্দী সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের একটি আলাদা জগৎ হয়ে উঠেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

মঙ্গলবারই ‘ভেড়িয়া’ সিনেমার প্রচারে শহর কলকাতায় পা রেখেছিলেন বরুণ ধাওয়ান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ও। সেখানেই বলিউড অভিনেতার হয়ে গলা ফাটাতে দেখা যায় টলিপাড়ার বুম্বাদাকে। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন অভিনেতা বরুন ধাওয়ানকে তিনি অত্যন্ত পছন্দ করেন কারণ তিনি মনে করেন অভিনেতা একটি গোটা প্রজন্মকে উপস্থাপনা করছেন বড় পর্দায়। পাশাপাশি অভিনেতার বাবা ডেভিড ধাওয়ানের জন্য এদিন কলকাতার বিখ্যাত মিষ্টি দই পাঠাতে চেয়েছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু এর পরেই আপত্তি করে বসেন অভিনেতা নিজে। তিনি জানান তার বাবার মিষ্টি খাওয়া বারণ যে কারণে কিছুতেই প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের তরফ থেকে এই উপহার তিনি গ্রহণ করতে পারবেন না।

তবে অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন বারণ থাকা সত্ত্বেও তিনি চান কলকাতার তরফ থেকে মিষ্টি অভিনেতার বাবার জন্য পাঠাতে। এসবের মাঝেই বলিউড অভিনেতাকে বাংলা গানে নাচানোর সুযোগ ছাড়লেন না প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। ‘ভেড়িয়া’র প্রচারের অবসরেই বরুণ ধাওয়ান কোমর দোলালেন বুম্বার সঙ্গে। তাও আবার প্রসেনজিতের ফিল্মি কেরিয়ারের ‘চোখ তুলে দেখো না..’র মতো অন্যতম সুপারহিট গানে। তবে পুরনো গানটা নয়, ‘প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা’র নয়া গানেই বরুণকে নাচালেন তিনি। আর বলিউড অভিনেতাও কম যান না! প্রসেনজিৎকে দেখে যথাযথ স্টেপ নকল করে নাচলেন। প্রসঙ্গত এদিন সক্রিয়ভাবে বরুন এবং অভিনেত্রী কৃতির সঙ্গে এই সিনেমার প্রচারে নামতে দেখা গিয়েছে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে। তিনি জানিয়েছেন ট্রেলারটি তিনি নিজে দেখেছেন এবং সিনেমাটি দেখার জন্য এই মুহূর্তে মুখিয়ে রয়েছেন তিনি। গোটা টিমকেই অসংখ্য শুভেচ্ছা। বরুণ, কৃতীদের মতো দক্ষ অভিনেতারা রয়েছেন।