বোম্বাইয়ের মঞ্চে অসাধারণ গান গেয়ে বলিউডের দাদা মিঠুন চক্রবর্তী কে তাক লাগিয়ে দিলেন পাহাড়ি শিশু শিল্পী জেটসেন, ভাইরাল ভিডিও

শুরু হয়ে গেছে সর্বশ্রেষ্ঠ অন্যতম জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো সা রে গা মা পা লিটল চ্যাম্পস। দেশের কোনা কোনা থেকে ছোট্ট ছোট্ট খুদে প্রতিযোগীরা,

এসে গেছে তাদের প্রতিভা দেখাতে এই মঞ্চে। প্রতিবারের মতন এবারে রয়েছে জুড়ি টিম। এদিকে বিচারকের স্থানে রয়েছেন আনু মল্লিক,

শংকর মহাদেবান এবং নীতি মহান। প্রতি শনি এবং রবি অনুষ্ঠিত হয় জিটিভির পর্দায় এই ছোট ছোট খুদেদের নিয়ে রিয়ালিটি শো টি।

ইতিমধ্যেই এই শো এর অন্যতম দুই পার্টিসিপেন্ট হয়ে উঠেছে মাত্র নয় বছরের খুদে কন্যা জেটশেন দোহনা লামা এবং সাত বছরের হারমেহের কৌর কালসে। এমনিতে প্রত্যেকটি বাচ্চা মঞ্চে দুর্দান্ত পারফরমেন্স দিয়ে সকলের মন জিতছে। কিন্তু এই দুই খুদে কন্যা একেবারে সকলকে মুগ্ধ করছে প্রতি সপ্তাহে। সম্প্রতি সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস এর মঞ্চে আমন্ত্রিত করা হয়েছিল অন্যতম বলিউড টলিউড অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী কে। অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর স্পেশাল এপিসোডে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিলেও জেটশেন এবং হারমেহের। প্রথমেই গান শুরু করল জেটশেন,

এরপর পাশে হাতে গিটার নিয়ে তার সাথে গলা মেলালো হারমেহের। প্রথমেই একসাথে তাদের দুজনকে গাড়িতে শোনা গেলেও মিঠুন চক্রবর্তীরই একটি জনপ্রিয় সিনেমার গান। অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী পর্যন্ত অবাক হয়ে গেছেন এই দুই খুদে কন্যা আর এমন দুর্দান্ত গানের গলা শুনে। এদিকে সকল বিচারকরাও পুরো মুগ্ধ হয়ে তাঁদের গান শুনছিলেন। এদিন মঞ্চে দূরুটো গান মিঠুন চক্রবর্তী সিনেমার গেয়েছে জেটশন এবং হারমেহের। এরপর আনু মল্লিক এবং কবিতা কৃষ্ণমূর্তির গাওয়া মিঠুন চক্রবর্তীর সিনেমার গান “জুলি জুলি” গানটি গে সকলকে পুরো তাক লাগিয়ে দিল এই দুই খুদে কন্যা।

তাদের গান শুনে গ্র্যান্ড জুড়ী থেকে শুরু করে সকল বিচারক এবং মিঠুন চক্রবর্তীর নিজে পর্যন্ত অবাক হয়ে গেলেন। এইটুকুনি বয়সে তারা যেভাবে এমন শক্ত একটি গান অনায়াসে গিয়ে দিয়েছে তা একেবারে প্রশংসারযোগ্য। খুদে কন্যা জেটশন যেভাবে পুরো ছেলেদের গলা করে গান গেয়েছে তার সত্যিই অবাক করে দেওয়ার মতন আর এদিকে হারমেহের যে কিনা হাতে গিটার নিয়ে নিজের প্রতিভা সকলের সামনে তুলে ধরেছে। ভিডিওটি মাত্র কিছুদিন আগেই ইউটিউবে Zee TV UK নামের একটি চ্যানেল থেকে ভাইরাল হয়েছে। মাত্র কিছুদিনের মধ্যেই ভিডিওটি ১৫৪ হাজার ভিউজ অতিক্রম করে গেছে। এদিকে অসংখ্য মানুষ কমেন্ট করেছেন ভিডিওটিতে।