ধারাবাহিকে স্বামী-স্ত্রী হলেও একে অপরের মুখদর্শনও করেনা ‘সিধাই’, অবশেষে মুখ খুললেন আদৃত রয়

বাংলা ধারাবাহিক আর ছাপোষা পরিবারের একটা অঙ্গাঙ্গী সম্পর্ক রয়েছে।সন্ধ্যে হলেই সারাদিনের ক্লান্তি ধুয়েমুছে তারা রিল লাইফের,

সাংসারিক দোটানার চিন্তায় মগ্ন হয়ে যান। সেই কারণেই চরিত্রদের সাথেও একটা আত্মিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। রিল লাইফের মোড়ক সড়িয়ে,

তাদের আসল রুপটা দেখতেও আগ্রহী হন তাঁরা। বাংলা টেলিভিশনের দুনিয়ায় নতুন নন সৌমিতৃষা, তবে মিঠাই-এর সুবাদে তাঁর জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া।

আদৃতের এটিই প্রথম মেগা। এর আগে সে বড়পর্দায় কাজ করেছে। আট থেকে আশি, সবাই মুগ্ধ সিদ্ধার্থ মিঠাই ম্যাজিকে। ফ্যানরা তাঁদের ভালোবেসে ডাকে সিঠাই নামে। বর্তমানে অবশ্য প্লট অনুযায়ী মিঠাই মারা গিয়েছে। সৌমিতৃষা এসেছেন মিঠিরুপে। তবে তাতেও জনপ্রিয়তা কমল ক‌ই। সকলে মিলে ফের জাগিয়ে উঠিয়েছে হল্লাপার্টিকে। তবে এর‌ইমধ্যে উঠে এল বড়সড় খবর। জানা যাচ্ছে, পর্দায় মিঠাই ও উচ্ছেবাবুর সম্পর্ক যত‌ই মিষ্টি হয়ে থাকুক না কেন অফস্ক্রিণে নাকি কেউ কারোর মুখদর্শন অব্দি করতে চাননা। যদিও সৌমিতৃষা আগেও জানিয়েছিল বাইরে যেমন সম্পর্ক‌ই হোক না কেন তার প্রভাব মোটেই পড়তে দেবেন না তিনি ও তার সহকর্মীরা।

তার সঙ্গে তিনি এটাও বলেছিলেন দর্শকরা যাতে ভালোবাসার কোনো কমতি না রাখেন। আর এবার সেই জল্পনাকে জিইয়ে রেখে নয়া স্টেটমেন্ট দিলেন আদৃত। সম্প্রতি একটি জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়েছিলেন আদৃত। সেখানেও এই বিষয়টিতে প্রশ্ন করা হয়। আর তখন‌ই আদৃত ধোঁয়াশা রেখে মন্তব্য করেন। বলেন, “আমার কানেও এসব গুজব এসেছে। কিন্তু আমি মনে করি এসব কথা কানে না তোলাই শ্রেয়। এইসব কথা দর্শকরা মনে রেখে দিলে সিরিয়াল দেখার সময় দৃষ্টিভঙ্গি নষ্ট হয়ে যায়। এসব মাথায় রাখবেন না।”