ছোট্ট কেশবকে কোলে নিয়ে অন্নপ্রাশন আয়োজন করল মা মধুবনী, বরনডালা দিয়ে বরণ করছে দাদিমা, ভিডিও ভাইরাল

টেলিপাড়ার জনপ্রিয় তারকা সন্তানদের মধ‍্যে প্রথম দিকেই নাম থাকবে কেশবের (keshav)। রাজা গোস্বামী (raja goswami) ও মধুবনী গোস্বামীর (madhubani goswami) আদরের ছেলে সে। গত এপ্রিলে অভিনেত্রীর কোল জুড়ে আসে ‘গিরিধারি গোপাল’। কৃষ্ণভক্ত রাজা মধুবনী এই নামেই ছেলেকে ডাকেন। এর আগে নিজের সোশ‍্যাল মিডিয়া অনুরাগীদের সঙ্গে কেশবের পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন মধুবনী।

এবার রাজা মধুবনীর ইউটিউব চ‍্যানেলেরও প্রধান আকর্ষণ হয়ে উঠল কেশব। মধুবনী গোস্বামী (Madhubani Goswami) ও রাজা গোস্বামী (Raja Goswami)-র একমাত্র পুত্রসন্তান কেশব (Keshab)-এর বয়স দেখতে দেখতে সাত মাস হয়ে হয়ে গেল। দুর্গাপুজার মহাপঞ্চমীর দিন ছিল কেশবের অন্নপ্রাশন। সেই সময় সপরিবারে ছবি শেয়ার করেছিলেন রাজা ও মধুবনী। সঙ্গে ছিলেন মধুবনীর মা ও বাবা।

দূর্গাপুজোর পঞ্চমীতে ঘরোয়া অন্নপ্রাশন হয়েছে কেশবের। লাল ব্লাউজ, সবুজ বেনারসীতে সেজেছিলেন মধুবনী। ঘরোয়া সাজে দেখা গিয়েছিল রাজাকে। ছোট্ট লাল পাঞ্জাবি ও ঘিয়ে রঙের ধুতিতে সাজানো হয়েছিল কেশবকে। ছেলের মাথায় টোপরও দেখা গিয়েছে।

কিন্তু তখন কোনো কারণে কেশবের মুখ আড়াল করে দিয়ে ট্রোলের সম্মুখীন হয়েছিলেন মধুবনী।যদিও শপথ করেছিলেন অভিনেত্রী তাঁর পুত্র কেশবের মুখ এত সহজে দেখাবেন না। এমনকি নেটিজেনদের উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা ছিল, যতদিন পর্যন্ত তিনি মনে করবেন যে তাঁর সন্তানকে,

সবার সামনে আনা উচিত নয় ততদিন তিনি আনবেন না পুত্রকে, সে যদি পুত্রের বয়স ১ বছরও হয়ে যায় তাতেও কোনো ক্ষতি নেই। কিন্তু সেই শপথ আর রাখা হলনা মধুবনির। কয়েকদিন আগেই ছেলে ‘কেশব’ (Keshav)-এর চেহারা বা মুখ সামনে এনেছেন এই তারকাজুটি।

নেটিজেনদের কোনো অভিযোগ করার সুযোগই দেননি মধুবনী। শুধু কেশবের ছবিই না, ইউটিউব চ‍্যানেলে অন্নপ্রাশনের ভিডিও শেয়ার করেছেন তিনি। প্রায়দিনই ক‍্যামেরার সামনে আসতে আসতে বেশ ক‍্যামেরা ফ্রেন্ডলি হয়ে গিয়েছে কেশব। মা ডাকলেই মিষ্টি করে হেসে দেয় সে। ইতিমধ‍্যেই ১৭ হাজার ভিউ হয়ে গিয়েছে ভিডিওতে। কেশবের পরনে ছিল অফ হোয়াইট রঙের ধুতি ও লাল রঙের পাঞ্জাবি।

কেশবকে কোলে নিয়ে ছবি শেয়ার করে মধুবনী অনুরাগীদের মহাপঞ্চমীর শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখেছিলেন কেশবের অন্নপ্রাশনের কথা। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে কেশবের অন্নপ্রাশনের অনুষ্ঠান ঘরোয়াভাবেই করা হয়েছে। প্রথমে মন্দিরে পুজো দিয়ে তারপর কেশবের মুখে প্রসাদ দিয়ে,

অন্নপ্রাশনের অনুষ্ঠান শুরু হয়েছিল। পরিবারের সবাই বাঙালি রীতিতে সাজলেও পুরো অনুষ্ঠানের দিক রাজা দেখছিলেন বলেই তিনি বেছে নিয়েছিলেন ক্যাজুয়াল জিনস ও টি-শার্ট। কেশবের জন্য কোনো আয়া রাখেননি মধুবনী। তাঁর প্রথম প্রায়োরিটি সন্তান। তাই এখন তিনি কাজে ফিরছেন না। কিন্তু তাঁর বিউটি পার্লারের প্রচার করছেন মধুবনী,

তবে তা অবশ্যই ইন্সটাগ্রামে। রাজা এই মুহূর্তে অভিনয় করছেন ‘খড়কুটো’ সিরিয়ালে। কেশবের অন্নপ্রাশনের আগে তার মুখ দেখাতে চাননি রাজা ও মধুবনী। তাঁরা কেশবকে সেলিব্রিটির সন্তান হিসাবে মানুষ করতে চান না। স্পটলাইটের বাইরে আর পাঁচটা বাচ্চার মতোই বড় হোক কেশব,

রাজা ও মধুবনী তাই চান। এর আগে ১৪ নভেম্বর শিশু দিবস উপলক্ষে ইউটিউবেই কেশবের প্রথম ভিডিও আপলোড করেছিলেন অভিনেত্রী। ছেলের সঙ্গে ‘খেলু খেলু’ করার ভিডিও শেয়ার করেছিলেন তিনি। বাবার সঙ্গে খেলার ফাঁকে ফাঁকে ক‍্যামেরার দিকে তাকিয়ে মিষ্টি হাসছে ছোট্ট কেশব মধুবনী জানান একরত্তির সঙ্গে তাঁরা ‘খেলু খেলু’, ‘নাচু নাচু’ এমন ভাবেই কথা বলেন।

উৎসবের মরসুম প্রায় শেষ। দুর্গাপুজো, কালীপুজো সবটাই শেষ হয়েছে। তবে এখনো বাকি আছে জগদ্ধাত্রী পুজো, রাসপূর্নিমা, কার্তিক পুজো প্রভৃতি। তবে এসব এক একটি জায়গায় বিখ্যাত। উৎসবের মরসুমের রেশ ধরেই রাজ্যে ঢোকে শীতকাল। এখনো পুরোপুরি ঠান্ডা না ঢুকলেও শীতের আভাস ঢুকে গিয়েছে ইতিমধ্যেই দেশে। হালকা গরম পোশাকে রাজ্যবাসী ইতিমধ্যেই সেজে উঠেছে।