রাস্তার মধ্যে গিটার বাজিয়ে খালি গলায় দুর্দান্ত সুরে গান গেয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিলো অসহায় বালক, ভাইরাল ভিডিও

পশুপাখির মজাদার কার্যকলাপ হোক কিংবা তথ্যসমৃদ্ধ কোনো ঘটনা, কোয়ালিটির কন্টেন্ট হলেই তা মানুষের নিউজফিডে পৌঁছতে বেশি সময় নেয় না।

স্যোশাল মিডিয়ার ক্ষমতা সম্পর্কে তো কমবেশী আমরা সব‌ই জানি। রানাঘাটের স্টেশনে ভিক্ষা করা রানু মন্ডলকে মুম্বাই পৌঁছে,

দিয়েছিল এই নেটিজেনরাই। আবার ভুবন বাদ্যকর‌কেও তুখার জনপ্রিয়তা এনে দেওয়ার পিছনে রয়েছে স্যোশাল মিডিয়ার‌ই হাত।

সম্প্রতি তেমন‌ই অপরুপ সুরসম্ভার দেখার সুযোগ মিলেছে এক বালকের কন্ঠে। বয়স খুব বেশী নয় তাঁর। দারিদ্রের মধ্যে বড় হচ্ছে তা বোঝা যায়। পরনে মলিন পোশাক। হাতে গিটার। তাকে ঘিরে রয়েছে অভিজাত পরিবারের ছেলেপুলেরা। বয়সে বড় সেই দাদাদের থেকেই হয়ত গিটার চেয়ে নিয়েছে সে। অথচ গিটার বাজাতে সে পারদর্শী। সকলের মাঝে বসে গিটার হাতে জুড়ে দিল ‘তেরি মিট্টি’ গানটি। গান ধরতেই বোঝা গেল গলায় সুর রয়েছে তাঁর। গিটারের হাত‌ও রয়েছে। ব্যস, শুরু হয় হৈহৈ রব।

তাকে ঘিরে রয়েছে মানুষরা। তাদের মধ্যে কেউ কেউ সম্ভ্রান্ত আবার কেউ তাঁর‌ই সমতুল্য দরিদ্র। প্রত্যেকেই মোহিত ছেলেটির গান শুনে। জানা গেছে তাঁর নাম শিবম। তাকে সাপোর্ট দিতে আর‌ও একটি ছেলে গিটারে তাল দিচ্ছে। একজন বসে র‌্যাপ করতে শুরু করে। ছেলেটিও গিটারের কর্ড চেপে সুর তোলে। ভিডিওটি এর‌ইমধ্যে বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। প্রথমত, গিটার কেনার সামর্থ্য না থাকা বালক কীভাবে এত ভালো বাজাতে শিখল, এবং দ্বিতীয়‌ত, তাঁরা যারা নিজেদের গিটার বাজাতে দিল নির্দ্বিধায়, দুপক্ষ‌কেই কুর্নিশ জানাচ্ছে নেটিজেনরা।

ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে রাকিব আবদুর নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে। ক্যাপশনে তাঁকে উল্লেখ করা হয়েছে ‘শিবম দ্য গিটার বয়’ নামে। দুই বছর আগে পোস্ট করা ভিডিওটি ইতিমধ্যেই সতেরো হাজার মানুষ দেখে ফেলেছেন। লাইক করেছেন প্রায় হাজার জন। কমেন্ট করে প্রশংসা করেছেন। এক নেটিজেন লিখেছেন, “দয়া করে ওকে সমর্থন করুন, ও বড় হয়ে অনেক ভালো গায়ক হতে পারবে।” আর‌ একজনের মন্তব্য, “গানের প্রতি ওঁর স্বতস্ফূর্ততা দেখে অভিভূত হলাম। অনেক বড় হবে ওঁ।”