১২ বছর বয়সে সংসারের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়ে ট্রেনে ঢোল বাজিয়ে খালি গলায় দুর্দান্ত সুরে গান করছে দরিদ্র ভাই বোনের জুটি, ভাইরাল ভিডিও

আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় এডিক্টেড কে না নয়! সময় সুযোগ পেলেই একটু কোমর নাচাতে কারুরই দেরি হয়না। এছাড়া নাচ, গান, স্টান্ট,

খেলা সবেতেই ওস্তাদ মানুষের এখন জুড়ি মেলা ভার, যা কিনা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই উঠে আসে। প্রতিদিনই এখানে মানুষের,

নতুন নতুন কান্ড-কারখানা ভাইরাল হচ্ছে। আমাদের আধুনিকতম যুগে নিত্যদিন আমাদের জীবনে সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্ব বেড়েই চলেছে।

মানুষ এটি এমন একটি প্লাটফর্ম হিসেবে ধরে নিয়েছে যার মাধ্যমে সারা বিশ্বের কাছে নিজেকে এবং নিজের প্রতিভাকে তুলে ধরতে সক্ষম হয়। যত দিন যাচ্ছে ততই মানুষ যেন আরো বেশি এই ডিজিটাল দুনিয়ার ওপরে নির্ভর হয়ে পড়ছে। আর স্মার্টফোন ব্যবহার করলে এটা স্বাভাবিক যে সে কোনো না কোনো সোশ্যাল মিডিয়া সাইট যেমন ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউব ইত্যাদি ব্যবহার করে থাকেন। সোশ্যাল মিডিয়াতে বর্তমানে ট্রেন্ড হয়েছে শর্ট ভিডিওর। ১৫ বা ৩০ সেকেন্ডের ভিডিও বানিয়ে পোস্ট করলে তা অপেক্ষাকৃত বেশি ভাইরাল হয়। তাই প্রায় সকল বয়সের মানুষই আজকাল এই শর্ট ভিডিও বানানোর নেশায় মত্ত হয়েছেন।

তবে জনপ্রিয়তার খিদে মেটাতে অনেকেই রিল বানানোর জন্য নিজের জীবনের বাজি রাখেন। কেউ অবাক করা কিছু স্টান্ট করে বা কেউ প্রাণের বাজি রেখে দুঃসাহসিক কিছু কাজ করে নিজেকে কুল প্রমাণ করার চেষ্টা করেন। হ্যাঁ, এটা সত্যি যে অনেক এরকম ভিডিও ভাইরাল হয়। কিন্তু সামান্য ভুলচুক হলেই প্রাণ যেতে পারে জনপ্রিয়তার চক্করে। এরই মধ্যে, ইন্টারনেটে এমনই এক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা দেখে গা শিউরে উঠতে পারে আপনার। ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, এক অসহায় বাচ্চা কোন এক দূরপাল্লার ট্রেনের কামড়ায় বসে গান শুনি সামান্য কিছু টাকা রোজগার করার চেষ্টা করছে। এই তরুণের হাতে ছিল একটি তবলা আর এই তবলার তালে সে একটি জনপ্রিয় হিন্দি গান গাইছে।

যেটি হল আলতাফ রাজের গাওয়া হিট সং ” তুম তো ঠের পরদেশী “। যদিও এই গানের বর্তমানে অনেক রেমিক্স ভার্সন বেরিয়েছে। তরুণের গলায় এই গান যেন এক নাগারে বেজে চলেছে এরকমই মনে হবে এই ভিডিওতে। এই সম্পূর্ণ দৃশ্যটি ক্যামেরাবন্দি করে একজন আপলোড করেছেন ইউটিউব। ভিডিওটি বর্তমানে ইউটিউবে, TV LOCAL BD নামক চ্যানেলে পোস্ট করা হয়েছে। বহু সংখ্যক মানুষ এই ভিডিওটি দর্শক হয়েছেন ও হাজারেরও বেশি মানুষ ভিডিওটি পছন্দ করে লাইক করেছেন। অনেকেই কমেন্ট করে এই তরুণ ছেলের গানের প্রশংসা করেছেন। আপনারা গিয়ে দেখে নিন এই ভিডিও।