ছেলে কেশবকে না দেখলে সময় কাটে না বাবার, শুটিংয়ের ফাঁকে স্ত্রী সন্তানকে রেস্টুরেন্টে খাবার খাওয়াতে নিয়ে গেলেন অভিনেতা রাজা

মধুবনী গোস্বামী, বাংলা টেলি জগতের একটি বেশ পরিচিত মুখ। তাঁর জনপ্রিয়তার কথা আলাদাভাবে বলার কোনও প্রয়োজন পড়ে না।

বেশ অল্প বয়স থেকেই অভিনয় শুরু করেছেন তিনি। আজও দর্শকের মনে তাঁর সেই তোড়া ইমেজটাই যেন গেঁথে রয়েছে।

স্টার জলসার ‘ভালোবাসা ডট কম’ দিয়ে শুরু মধুবনীর অভিনয় জীবন। সেই ধারাবাহিকেরই চরিত্র ওম অর্থাৎ রাজা গোস্বামীর সঙ্গে অভিনয়,

করতে করতে সম্পর্ক তৈরি হয় তাঁর। পরবর্তীতে সেই সম্পর্কে স্বীকৃত দেন রাজা ও মধুবনী। বিয়ে করেন তারা। তবে তাদের সেই ওম-তোড়া নামটার সঙ্গেই দর্শক এখনও বেশি পরিচিত। প্রথমে বন্ধু, তারপর প্রেমিক-প্রেমিকা, এরপর স্বামী-স্ত্রী, সব সম্পর্ক পেরিয়ে এখন রাজা ও মধুবনী বাবা-মা। ছোট্ট কেশব এসেছে তাদের সংসারে। এখন তাঁকে নিয়েই সময় কেটে যায় রাজা ও মধুবনীর। ছেলের সঙ্গে নানান ছবি, ভিডিও হামেশাই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে থাকেন মধুবনী। কিছুমাস আগেই রাজা ও মধুবনী ইউটিউবে একটি চ্যানেলও খুলেছেন। সেই চ্যানেলে ছেলের সঙ্গে কাটানো নানান মুহূর্ত তুলে ধরেন তারা।

এবার ছেলেকে নিয়ে একটি রেস্টুরেন্টে খেতে গেলেন মধুবনী, আর সেখানে গিয়ে এই ছেলেকে নিয়ে নানান ধরনের ছবি শেয়ার করলেন মধুবনী নিজের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে। পরপর নয়টা ছবিই শেয়ার করেছেন মধুবনী ভক্তদের সাথে। দেখা গেল ছেলেকে কোলে বসিয়ে খাইয়ে দিচ্ছেন মধুবনী আর পাশ থেকে এই দৃশ্য ক্যাপচার করেছেন রাজা। এদিকে ছোট্ট কেশবও খেতে খেতে নানান ধরনের মুখের অঙ্গি ভঙ্গি করেছে। মাথায় ছোট্ট কেশবের একটি ঝুটি বেঁধে দিয়ে ছেলেকে নিয়ে রেস্টুরেন্টে খেতে গেছে রাজা আর মধুবনী। প্রত্যেকটি ছবিতেই ছোট্ট কেশবকে দেখতে খুবই মিষ্টি লাগছে।

তবে এখানেই শেষ নয় কয়েকটি ফ্যামিলি পিক ও আপলোড করেছেন তারা। কখনো দেখা গেল রাজা মধু নিয়ে আর ছেলে কেশবকে কোলে বসিয়ে খেতে খেতেই সেলফি তুলেছেন তারা আবার কখনো ছেলের সাথে দুষ্টুমি করে একটি সুন্দর মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করেছেন রাজা। ছেলের সঙ্গে এই মিষ্টি ছবি শেয়ার করে মধুবনী ক্যাপশনে লেখেন, “কেশব এখন রেস্টুরেন্টে খাচ্ছে”। তাঁর এই ছবিতে নানান সুন্দর সুন্দর মিষ্টি কমেন্ট করেছেন নেটিজেনরা। লাইকের বন্যা বয়ে গিয়েছে এই ছবিতে। শুধু এখনই নয়, অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীনও নিজের প্রত্যেক মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিতেন মধুবনী।