ভাইয়ের স্নেহ কেউ দিতে পারেনা! বাবা মায়ের মৃ”ত্যুর পরে ৫ মাসের দুধের শিশু বোনকে নিয়ে রাস্তার বেঞ্চিতে বসেই বুকে আগলে আছে ভাই, রইলো ভিডিও

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিদিন অসংখ্য ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম গুলিতে প্রতিদিন আমরা অসংখ্য,

ভিডিও দেখতে পাই। যেমন তার মধ্যে অন্যতম একটি প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে ফেসবুক। ফেসবুকে আমরা নানান ধরনের ভিডিওর সম্মুখীন হই প্রতিদিন।

কখনো থাকে জীবজন্তুর ভিডিও আবার কখনো থাকে চোখে জল এনে দেওয়ার মতন ভিডিও। mসম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সেরকম একটি,

চোখের জল এনে দেওয়ার মতন ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। রাস্তাঘাটে চলাফেরা করার সময় আমরা এরকম মানুষ প্রায় সময় দেখতে পাই যারা খুবই গরীব দুস্থ পরিবারের হয়। সামর্থ্য অনুযায়ী কেউ কেউ আমরা তাদের সাহায্য করি। সম্প্রতি ঠিক তেমনি ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওতে দুটি গরিব দুস্থ শিশুকে দেখা গেছে তার ধারে বসে থাকতে। এই ভিডিও দেখলে আপনার চোখে জল আসবে। ভাইরাল হওয়ায় ভিডিওতে দেখা গেছে তার পাশে একটি বেঞ্চ রয়েছে আর সেই বেঞ্চের এক কোনায় বসে রয়েছে একটি বাচ্চা ছেলে এবং তার পাশে একটি ছোট্ট বাচ্চা মেয়ে। যতদূর সম্ভবত এই ভিডিও দেখে বোঝা গেছে বাচ্চা ছেলেটি হয়তো এই ছোট্ট মেয়েটির দাদা। কারণ দেখেই বোঝা গেছে ছেলেটির বয়স খুব জোর পাঁচ বছরের হবে আর তার পাশে বসে থাকা ছোট্ট বাচ্চা মেয়েটির বয়স এক থেকে দুই বছরের হবে। দেখা গেছে বাচ্চা মেয়েটি তার দাদাকে,

জড়িয়ে ধরে বসে রয়েছে বেঞ্চের এক কোনায়। দেখা গেছে বাচ্চা ছেলেটির গায়ে একটি অপরিষ্কার জামা প্যান্ট আর পাশে ছোট্ট মেয়েটির গায়ে রয়েছে একটি জামা। সাথে দুজনেরই উষ্কখুষ্ক চুল। দেখা গেছে বাচ্চা ছেলেটি বেঞ্চের গায়ে হেলান দিয়ে ঘুমোচ্ছে অঘোরে। আর পাশে বসে থাকা তার ফুটফুটে ছোট্ট বোনটি দাদাকে জড়িয়ে ধরে বসে রয়েছে এবং হা করে চারিদিকে তাকিয়ে রয়েছে। এঅসময় দেখা যায় পাশ থেকে একটি লোক এসে বাচ্চা ছেলেটিকে ডাক দেয়। কিন্তু ছোট্ট ওই ছেলেটির ঘুমে এতই অঘোর রয়েছে যে তাকে ডাকলেও তার হুশ মেলেনা। এদিকে তার ছোট্ট বোনটি তাকে জড়িয়ে ধরে বসে রয়েছে। কারণ ওইটুকুনি বয়সে একটি বাচ্চা জানে যে তার দাদাই তার কাছে সবকিছু। গত মাসে ফেসবুকে Nabila Nur নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে ভাইরাল হয়েছে। ৪৯৮ হাজার মানুষ ভিডিওটি বর্তমানে দেখেছেন।