হাতে বাঁশ পাতা নিয়ে ফের নতুন গান গেয়ে নেটদুনিয়া কাঁপালো বিখ্যাত রানু মন্ডল, ভাইরাল ভিডিও

রানাঘাটের রানু মণ্ডল মানেই চমক! প্রায়ই নতুন কিছু করে ভাইরাল হচ্ছেন তিনি। সালটা ২০১৯। সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরেই উত্থান হয়েছিল রানুর।

আচমকা পেয়েছিলেন জাতীয় খ্যাতি। শিখরে পৌঁছেছিলেন স্বপ্নের। এমনকি পেয়েছিলেন লতাকণ্ঠীর তকমাও। গানের দৌলতে পৌঁছে গিয়েছিলেন বলিউডে,

কাজ করেছিলেন হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গেও। তবে ঘটনা পরম্পরা তাঁকে নামিয়ে আনে আবার তাঁর পুরোনো চেনা বাড়িতেই। অচিরেই তাকে ভুলেছে বলিউড।

 

চারিপাশের আলোর রোশনাই আর নেই। নেই ভিড়। বর্তমানে তাকে ফিরে আসতে হয়েছে তার পুরনো ভাঙাচোরা বাড়িতে, ফিরে যেতে হয়েছে পুরনো জীবনে। সেখানে কোনওমতে দিন গুজরান হচ্ছে। তবে এসবের মধ্যেও খামতি নেই আনন্দের। সব সময় তাঁর সঙ্গে থাকে আনন্দ ও গানের সুর‌। কিন্তু সম্প্রতি তাঁকে পাওয়া গেল একেবারে অন্য ভূমিকায়। দর্শকদের চমক দিতে কসুর করেন না তিনি। এবার রানু মন্ডল কে দেখা গেল বাঁশের পাতা দিয়ে গান গাইতে। হ্যাঁ, ভুবন বাবুর কাঁচা বাদাম গান ভাইরাল হওয়ার পর রানুদিকে দেখা গিয়েছিল কাঁচা বাদাম গানটি গাইতে। তবে এবার রানু দিয়ে বাঁশের পাতা দিয়ে একটি গান গেয়ে শোনালো। রানুদির গান শুনে সোশ্যাল মিডিয়ার মানুষ তো পুরো হেসে গড়াগড়ি খাচ্ছে।

শুরুতেই দেখা গেল একটি যুবতী রানু দিকে এই বাঁশের পাতা দিয়ে গানটি গেয়ে শোনাতে বলল। রানুদের বাড়ির সামনে একটি বাঁশ পাতা গাছ আছে। আর সেই গাছ থেকেই এই যুবতী একটি পাতা ছিঁড়ে রানুদির হাতে দিল গান গাওয়ার জন্য। কাঁচা বাদাম গানের সুর ধরেই রান দিয়ে এই বাঁশ পাতা নিয়ে গান গেয়ে শোনালেন। তার এই গান শুনে যে কারোরই হাসি পেতে বাধ্য। একটু জল খেয়ে পড়ে দ্বিতীয় আরেকটি গান গেয়ে শোনালেন। এরপর রানুদিকে তেরি মেরি গানটি গেয়ে শোনাতে দেখা গেল।

এরপর এই যুবতী রানুদিকে জিজ্ঞাসা করেন যে তিনি যখন হিমেশ রেশমিয়ার সাথে তেরি মেরি গানটি রেকর্ড করতে গিয়েছিলেন তখন তার কিরকম লেগেছিল। রানুদি উত্তরে বলেন তিনি যখন ওখানে যান তখন হিমেশ রেশমিয়া মেকআপ করছিলেন। আর হিমেশ রেশমিয়ার মেকআপ করা দেখে রানুদি ভেবেছিলেন যে ওখানে হয়তো যাত্রা হবে কারণ তিনি জানতেন না যে ছেলেরাও মেকআপ করে। এইসব বলার পর এই যুবতী রানুদির সাথে আরো কিছুক্ষণ কথা বলেন। এরপর রানুদি বলেন তার সাথে যখনই কেউ খারাপ করে ব্যবহার করতে আসেন তিনি তখন ঝাঁটা দিয়ে সোজা তারা করেন। এরপর শেষে দেখা যায় এই যুবতী রানুদির সাথে একবার হাত মেলান।