অরুনিতার লাস্যময়ী রুপ দেখে রোমান্টিক গানের দেশে হারিয়ে গেলেন পবনদ্বীপ, ভাইরাল ভিডিও

“ইন্ডিয়ান আইডল টুয়েলভ”এর মঞ্চ থেকে সংগীত জগতে আত্মপ্রকাশ করেন অরুনিতা আর পবনদ্বীপ। আজ জনপ্রিয়তা তাঁদের তুঙ্গে রয়েছে।

তাঁদের অসাধারণ গানের গলার স্বরে স্বরবিদ্ধ সারা দেশবাসী। বিচারক থেকে সাধারণ মানুষ তারা প্রত্যেককেই তাদের অপূর্ব মুগ্ধ গায়কী দ্বারা মাতিয়ে রেখেছেন।

সাম্প্রতিক সময়ে “সুপারস্টার সিঙ্গার 2″ এর ক্যাপ্টেন এর ভূমিকায় রয়েছেন এই দুই প্রথিতযশা গায়ক আর গায়িকা।

ইন্ডিয়ান আইডল টুয়েলভের মঞ্চ থেকে তাদের প্রেম নিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি। বরাবরই এই দুই প্রথিতযশা গায়ক-গায়িকা যদিও নিজেদের মধ্যে থাকা কেমিস্ট্রিকে এড়িয়ে গিয়ে একে অপরকে ভালো বন্ধু হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন বরাবর। তবে আবারো সুপারস্টার সিঙ্গার শুরুর পর থেকে তাদের মধ্যকার ঘনিষ্ঠতা বয়ান দিচ্ছে অন্য কিছুর। হাতে হাত রেখে দেশ-বিদেশে লাইভ শো করে বেড়ানো থেকে করোনা পরবর্তী লাইভ সেশন প্রত্যেকটি অনুষ্ঠানেই একাত্রে উপস্থিত ছিল এই জুটি। এর পাশাপাশি প্রায়শই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদেরকে নিয়ে নানান মন্তব্য লেগে থাকে। সম্প্রতি আবারও সুপারস্টার সিঙ্গারের মঞ্চে অরুনিতা আর পবনদ্বীপকে নিয়ে কিছু মজা করার মুহূর্ত ভাইরাল হলো সোশ্যাল মিডিয়ার। এমনিতেই মঞ্চে সকলেই তাদেরকে নিয়ে মজা করতো।

যেমন কি হিমেশ রেশমিয়া, জাভেদ আলী তারপর সালমান আলী, মোহাম্মদ এরা সকলেই পবনদ্বীপ আর অরুনিতার পিছনে লেগে থাকতো। সম্প্রতি সেরকমই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিও শুরু হতেই দেখা যায় হিমেশ রেশমিয়া অরুনিতাকে বলছেন, অরুনিতা তুমি আজকে গোলাপি রঙের কিছু একটা পড়েছো না? অরুনিতা এই শোনে হেসে উত্তর দেয় হ্যাঁ। তারপর এখানেই শেষ নয় এরপর হিমেশ রেশমিয়া পবনদ্বীপকে বলে, আরে পবন তুমিও তো আজকে গোলাপি পড়েছো। আসলে অরুনিতা জানত যে পবনদ্বীপ ও গোলাপি রঙের পোশাক পরে এসেছে। সেই জন্যই অরুনিতা হেসে উত্তর দিয়েছিল। এরপর পবনদ্বীপ উঠে দাঁড়ায় এবং বলে, না আসলে আমি তো বাড়ি থেকেই গোলাপি রঙের পোশাক পরে এসেছিলাম, কিন্তু আমি জানতাম না যে অরুনিতাও গোলাপি পোশাক পরে আসবে। এই শুনে জাবেদ আলী বলেন, তারমানে দুজন দুজনের মন একদম একসাথে যুক্ত দুজনে একই রংয়ের পোশাক পড়ে এসেছে, বাহ্ কি মিল। এই শুনে মঞ্চে সকলেই হেসে ওঠে। আর ওদিক দিয়ে সাইলি মজা করে বলে, হ্যাঁ স্যার একদম ঠিক বলেছেন।

পবনদ্বীপ তখনই সঙ্গে সঙ্গে সাইলি কে বলে তোমাকে পুরো শো তে শুধু চুপচাপ বসে থাকতে হবে। আর তখনই হিমেশ রেশমিয়া বলেন, পবনদ্বীপ তুমি এই কথাটাই অরুনিতাকে বলোতো। আর সবাই বলে ওঠে হ্যাঁ, ও বলতে পারবে না। এরপরে দেখা যায় পবনদ্বীপ অরুনি তাকে বলে, আপনাকে চুপচাপ বসতে হবে। তাই শুনে মজা করে সাইলি বলে, আমাকে কিন্তু তুমি বলেছিল। এরপর হিমেশ রেশমিয়া বলেন আমি তোমাকে একটা সহজ প্রশ্ন করছি, অরুনিতা তোমার কে হয় তুমি বলো? সকলেই দিয়ে বলে ওঠে হ্যাঁ স্যার একদম ভালো প্রশ্ন করেছেন। উত্তরটা অরুনিতা দেয়, স্যার আমরা দুজনে খুবই ভালো বন্ধু। তখনই হিমেশ রেশমিয়া বলেন আরে আমি তো তোমাকে জিজ্ঞাসাই করিনি। এভাবেই প্রত্যেকটা সময় তাদের সাথে মজা করা হয়। গত চার মাস আগে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি বর্তমানে দেখেছে ৭১৫ হাজার মানুষ আর সাথে লাইক করেছেন ৭.৪ হাজার মানুষ। এদিকে ভিডিওটিতে বহু অসংখ্য কমেন্টও এসেছে।