১০ বছর বয়সে সংসারের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়ে ট্রেনের মধ্যে খালি গলায় দুর্দান্ত সুরে গান গেয়ে গোজগার করছে বালক, ভাইরাল ভিডিও

সঙ্গীত একমাত্র সাধনা দ্বারাই উপলব্ধি হয়। এই সঙ্গীতে দ্বারাই নাকি মুঘল যুগে মোঘল দরবারে তানসেন আগুন জ্বেলেছিলেন আবার মল্লার রাগে বৃষ্টি এনেছিল।

আবার সম্রাট আকবর বলতেন গান যিনি ভালোবাসেন না, তিনি প্রকৃত মানুষ নন। এই সংগীতের দ্বারাই সমগ্র পৃথিবীতে কত শত মানুষ জীবনযাপন,

ও জীবন ধারণ করে থাকেন। প্রতিভা থাকলেও অনেকেই গান গাওয়ার জন্য উপযুক্ত মঞ্চ পান না। তবে তাতে গিয়ার গানের প্রতি ভালবাসা কমে?

এই ভালবাসার তাগিদেই কেউ কেউ রাস্তায়, ট্রেনে, বাসে গান করে বেড়ান। মূলত জীবিকা নির্বাহের জন্যই ট্রেনে, বাসে ঘুরে ঘুরে গান গেয়ে থাকেন তারা। এই সংগীতই একমাত্র অন্ন জোগায় এই মানুষগুলির মুখে। আমরা ট্রেনে, বাসে যাতায়াত করার সময় প্রায়ই এমন মানুষ দেখতে পাই, যারা ছোট কোন সঙ্গীত যন্ত্রের সাহায্যে বা খালি গলায় আবার কখনো মাইক নিয়ে গান গেয়ে তাদের জীবিকা নির্বাহ করেন। সম্প্রতি Niraj Kumar নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে একটি ছোট্ট বাচ্চা ছেলের অসাধারণভাবে গান গাওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এই বাচ্চা ছেলেটি দুর্দান্তভাবে খালি গলায় গান গাইছে। তবে দেখা গেছে বাচ্চা ছেলেটির হাতে রয়েছে একটি বাদ্যযন্ত্র।

আর ওই বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে বাচ্চা ছেলেটি দুর্দান্তভাবে তার গলার আওয়াজ ট্রেনের সকল যাত্রীকে শোনাচ্ছে। আর এই বাদ্যযন্ত্র কিন্তু এই বাচ্চা ছেলেটির নিজের বানানো। হ্যাঁ আসলে এই বাচ্চা ছেলেটি মাত্র দুটো পাথরের সাহায্যে মিউজিক বার করে তার গানের গলা প্রকাশ করেছে সকলের সামনে। ভাবুন তাহলে এই বাচ্চা ছেলেটি কতটা প্রতিভাধারী। এই বয়সেই তার প্রতিভা ফুটে উঠেছে সকলের সামনে। এমন অসাধারণ কণ্ঠস্বর শুনলে হয়তো আপনিও অবাক হয়ে যাবেন। দেখা গেছে পরনে বাচ্চা ছেলেটির খুবই সাধারণ পোশাক এই পোশাকে বেরিয়ে গেছে সে ঘুরে ঘুরে দুটো পয়সা উপার্জন করতে। এই ছেলেটির অসাধারণ গানের গলা শুনে মুগ্ধ হয়েছে গোটা দুনিয়া। এই ছেলেটির গান এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে।

যেখানে এই বাচ্চা ছেলেটির বয়সে অন্য বাচ্চারা পড়াশুনা এবং খেলাধুলা করে বেড়াচ্ছে সেখানে এই বাচ্চা ছেলেটি একমাত্র বেঁচে থাকার তাগিদে এমনভাবে গানকে তার জীবনের একমাত্র পথ করে বেছে নিয়েছে। এভাবেই সে তার জীবিকা নির্বাহ করছেন। আর ট্রেনে এই যাত্রীদের মধ্যেই কেউ একজন এই বাচ্চাটির গান করার ভিডিও ভাইরাল করে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা দেখে মানুষ এখন মুগ্ধ। দেখা গেছে ট্রেনের সকল যাত্রীরা এই বাচ্চা ছেলেটির গান মনোযোগ দিয়ে শুনছেন। বাচ্চা ছেলেটিকে গাইতে শোনা গেছে “মহাব্বাত বারসা দেনা তু সাবান আয়াহে” এই গানটি। বাচ্চা ছেলেটির এমন দুধর্ষ মানুষের মন ছুঁয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে।

কিছু বছর আগে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি ইতিমধ্যেই দেখেছে ৩.৩ মিলিয়ান মানুষ এবং লাইক করেছেন ১০৬ হাজার মানুষ। ২.২ হাজার মানুষ বাচ্চা ছেলেটির গান শুনে কমেন্ট বক্সে প্রশংসা করে ভরিয়ে দিয়েছেন।হয়তো এই বাচ্চা ছেলেটি তার গানের জন্য কোন বিশেষ ভাবে তালিম নেয়নি। তবে সবকিছুর জন্য তালিম এবং গুরুজীর প্রয়োজন হয় না, কিছু কিছু ব্যক্তি শুধুমাত্র চর্চা দ্বারাই নিখুঁত সংগীত পরিবেশন করতে পারেন। আর তেমনি প্রতিভা রয়েছে এই ছোট্ট ছেলেটির মধ্যে যা নিয়ে কোনোরকম তালিম ছাড়াই অসাধারণ ভাবে সংগীত পরিবেশন করেছে ট্রেনের মধ্যে।